দাঁতের দাগ দূর করার ৬টি অসাধারণ প্রাকৃতিক পদ্ধতি

ধবে ধবে সাদা দাঁত কার না পছন্দ বলুন? কিন্তু অনেকে সময় বিভিন্ন কারণে দাঁত হলুদ হয়ে যায় বা হলদেটে হলদেটে দাগ পড়ে যায়। প্রতিদিন নিয়ম করে দাঁত ব্রাশ করার পরেও হলেদে দাগ দূর হয় না।

সাধারণ মানুষ হাসিতে পরিবর্তন আনার জন্য যে জিনিসটি নিয়ে সবচেয়ে বেশি ভাবেন তা হচ্ছে, নিজেদের দাঁত সাদা করা। এ প্রতিবেদনে প্রাকৃতিক ভাবে দাঁত সাদা করার ৬টি প্রাকৃতিক পদ্ধতি উল্লেখ করা হলো।

১. বেকিং সোডা এবং লেবু

হলুদ দাঁত সাদা করার উপায়গুলোর মধ্যে অন্যতম এবং কার্যকরী উপায় হল বেকিং সোডা এবং লেবুর রসের ব্যবহার। প্রথমে ৩০ গ্রাম বেকিং সোডার সাথে ১টি লেবুর রস মিশিয়ে নিন। দেখবেন মিশ্রনটি অনেকটা ফোমের মত হয়ে গেছে। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। একটি তুলার বল বা টুথব্রাশে বেকিং সোডার মিশ্রণটি লাগান। এবার এটি দাঁতে ঘষুন। এভাবে এক মিনিটের জন্য রেখে দিন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে লেবুর রসের পরিবর্তে পানি ব্যবহার করতে পারেন। পানি ব্যবহার করলে ২-৩ মিনিট পর্যন্ত এটি দাঁতে রাখতে পারবেন। বেকিং সোডা এবং লেবুর রসের পেস্ট অতিরিক্ত ব্যবহারে দাঁত ক্ষয় হয়ে যেতে পারে। এবং এতে করে দাঁত ভেঙ্গে যাওয়ার মত সমস্যাও দেখা দিতে পারে। তাই অতিরিক্ত ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকুন।

২. অ্যালোভেরা এবং গ্লিসারিন

এই টুথপেস্টটি তৈরি করতে আধা কাপ বেকিং সোডা, ১ চা চামচ অ্যালোভেরা জেল, ৪ চা চামচ ভেজিটেবল গ্লিসারিন এবং ১ চা চামচ লেমন এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণ দিয়ে দাঁত ব্রাশ করুন। মুহূর্তেই পেয়ে যান সাদা, উজ্জল এবং সুস্থ দাঁত

৩. কমলা খোসা

কমলার খোসার ভেতরটা দিয়ে দাঁত ঘষা হচ্ছে, দাঁত সাদা করার একটি নিরাপদ ও প্রাকৃতিক উপায়। খোসার সাদা অংশ বা অ্যালবেডোতে লিমোনিন থাকে- লিমোনিন হচ্ছে ন্যাচারাল সলভেন্ট ক্লিনার এবং প্রকৃতপক্ষে তা অনেক বাণিজ্যিক দাঁত সাদাকারক প্রোডাক্টে ব্যবহার করা হয়। কমলার মাংসল অংশের মতো এর খোসা অ্যাসিডিক নয়, তাই দাঁতের এনামেল ড্যামেজ হওয়ার কোনো ঝুঁকি নেই বলে এটি ব্যবহার করা নিরাপদ।

৪. তিলের বীজ

একমুঠো তিলের বীজ নিয়ে কয়েক মিনিট চিবিয়ে ফেলে দিন। এর পর দাঁতের ফাঁকে আটকে থাকা বীজ বের করতে পেস্ট ছাড়া দাঁত ব্রাশ করুন। এটা হচ্ছে খুব সহজে দাঁতের দাগ দূর করার দীর্ঘ মেয়াদি টিপস। নিয়মিত এই কাজ করলে ধীরে ধীরে দাঁতের সমস্ত দাগ দূর হয়ে যাবে।

৫. ভিটামিন টুথ মাস্ক

ভিটামিন সি সমৃদ্ধ ফল এবং সবজি ভর্তার নামই হচ্ছে ভিটামিন টুথ মাস্ক। এই মাস্ক তৈরি করে দাঁতে লাগালে দাঁত ঝলমলে পরিষ্কার হয়ে যায়। টমেটো, স্ট্রবেরি এবং কমলা ভালো করে বেটে দাঁতের উপর প্রলেপ দিয়ে ৫-৬ মিনিট অপেক্ষা করুন এবং পরে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে শুধু দাঁতই পরিষ্কার হবে না, মুখের ক্ষতিকর জীবণুও দূর হবে।

৬. আপেল সিডার ভিনেগার

আপেল সিডার ভিনেগারের অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে (যেমন- এটির অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল গুণ রয়েছে), কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এটি যে দাঁত সাদা করতে পারে তা সম্পর্কে অনেকে অবগত নন। দাঁতের দাগ দূর করতে এক টেবিল চামচ আপেল সিডার ভিনেগার দিয়ে দাঁত ব্রাশ করার চেষ্টা করতে পারেন এবং তারপর নির্মল শ্বাসের জন্য ও মাড়ির ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করার জন্য আপেল সিডার ভিনেগার দিয়ে কুলকুচা করতে পারেন।